ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে সৌদির রাজধানী রিয়াদ জেদ্দা ও দাম্মামে এইচএসসি পরীক্ষা

: বাংলাদেশের সঙ্গে একযোগে মিল রেখে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদ, জেদ্দা ও দাম্মামে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ও ন্যাশনাল কারিকুলামে পরিচালিত এইচএসসি পরীক্ষা ।
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সৌদি আরব প্রতিনিধি: বাংলাদেশের সঙ্গে একযোগে মিল রেখে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদ, জেদ্দা ও দাম্মামে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ও ন্যাশনাল কারিকুলামে পরিচালিত এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ রাজধানী রিয়াদ কেন্দ্রে এ বছরে এইচএসসি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২৯ জন এদের মধ্যে ১৬ জন ছাত্র ও ১৩ জান ছাত্রী।

এদিকে জেদ্দা বাংলা স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে এ বছর এইচএসসি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৫২ জন । এদের মধ্যে ২৪ জন ছাত্র এবং ২৮ জন ছাত্রী।

৬ নভেম্বর পার্থক্যের কারণে রিয়াদ জেদ্দা ও দাম্মামে পরীক্ষা শুরু হয় সৌদি স্থানীয় সময় সকাল আটটায়। পরীক্ষার্থীরা যথাসময়ে আধা ঘন্টা আগেই কেন্দ্রে প্রবেশ করেন।

রিয়াদ বাংলাদেশ স্কুল এন্ড কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন রিয়াদ-বাংলাদেশ দূতাবাসের কনসাল জেনারেল রাকিব হোসেন, হল সুপারের দায়িত্বে আছেন বাংলাদেশ ইন্টান্যাশলান স্কুল এন্ড কলেজের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন। কেন্দ্র সচিবের দায়িত্ব রয়েছেন রিয়াদ বাংলা স্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আফজাল হোসেন।

এদিকে জেদ্দায় কেন্দ্র পরিদর্শন করেন কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক। সাথে ছিলেন শ্রম কাউন্সিলর এম এমদাদুল ইসলাম। জেদ্দায় কেন্দ্র পরিদর্শকের দায়িত্ব পালন করেন, জেদ্দা কনস্যুলেটের কনসাল হজ্জ জহিরুল ইসলাম, কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্বে আছেন, ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হুমায়ূন কবির, হল সুপার এর দায়িত্বে আছেন ইংরেজি বিভাগের সহকারি অধ্যাপক মাসুউদুর রহমান ।

বোর্ডের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রশ্নফাঁদ সহ সকল অনিয়ম ঠেকাতে খুবই কড়াকড়ির মাধ্যমে ছাত্র ছাত্রীদেরকে পরীক্ষার আগে হলে প্রবেশ করানো হয়েছে । জেদ্দা কেন্দ্রে নিরাপত্তার জন্য মেটাল ডিটেক্টর ব্যবহার এবং সকল পরীক্ষার্থীদের দেহ তল্লাশি করে পরীক্ষার হলে প্রবেশ করতে দেয়া হয়। তাছাড়া দুটি কেন্দ্রেই মোবাইল বা কোন ইলেকট্রনিক ডিভাইস যাতে সঙ্গে না থাকে তা নিশ্চিত করা হয়।

জেদ্দা কেন্দ্রের পরীক্ষা পরিদর্শনে এসে কনসাল জেনারেল নাজমুল হক বলেন, সম্পুর্ণ নকলমুক্ত অত্যান্ত সুন্দর একটি পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সঠিক সময়ে সুন্দরভাবে পরীক্ষা গ্রহনে কনস্যুলেটের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

জেদ্দা বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও কেন্দ্র সচিব হুমায়ূন কবির জানান, ছাত্রছাত্রীরা যথেষ্ট প্রস্তুতি নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে এবং বিগত বছরের ন্যায় এবারও শতভাগ পাশের সুনাম অক্ষুন্ন রাখার ব্যাপারে আশাবাদী। তিনি আরো জানান, ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের নির্দেশনা মেনে এবং অভিন্ন প্রশ্নপত্রে জেদ্দা কনস্যুলেটের তত্বাবধানে পরীক্ষা চলছে এই কেন্দ্রে।