ডেঙ্গুতে ২৪ ঘন্টায় সারাদেশে ৫ জনের মৃত্যু

ফাইল ছবি
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: রাজধানীর পীরেরবাগ ঝিলপাড়ের বাসিন্দা মোহাম্মদ ওবায়দুল হক। আগস্টে ডেঙ্গুতে মারা গেছে তার ছয় মাসের কন্যা তাসনিম হক প্রাপ্তি। এখন তিনি নিজেও ডেঙ্গুর চিকিৎসা নিচ্ছেন সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। ডেঙ্গু আক্রান্ত তার পরিবারের আরও পাঁচ সদস্য।

মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আরও পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এ বছর ডেঙ্গুতে প্রাণহানি দাঁড়ালো ৩১ জনে।

ওবায়দুলের মত আরো ২১ জন ডেঙ্গুর চিকিৎসা নিচ্ছেন সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে। প্লাটিলেট কমে যাওয়ায় রক্ত দিতে হচ্ছে অনেককে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২৮৪ জন। দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৮৫০ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, আগস্টের চেয়ে সেপ্টেম্বরে প্রায় দ্বিগুণ রোগী ডেঙ্গু আক্রান্ত হচ্ছে।

রাজধানীর ১৭টি সরকারি এবং ৩২টি বেসরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গুর চিকিৎসা নিচ্ছেন ৭১১ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬ হাজার ৪৮ জন।

এ বছর ডেঙ্গুতে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ১৩ জনই ঢাকা মহানগরের বাসিন্দা। আর চট্টগ্রাম বিভাগে মারা গেছেন ১৬ জন, তাঁদের ১৫ জনই কক্সবাজারের। এ ছাড়া বরিশালে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে জ্বর হলে দ্রুত ডেঙ্গু পরীক্ষার পরামর্শ চিকিৎসকদের। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এবছর সেপ্টেম্বরে বৃষ্টিপাত বেড়েছে। তাই অক্টোবরের মাঝামাঝি পর্যন্ত ডেঙ্গুরোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকবে বলে আশঙ্কা করছেন কীটত্ত্ববিদেরা।

ডেঙ্গুর জীবাণু মানুষের শরীরে আসে এডিস মশার মাধ্যমে। বর্ষায় বাসাবাড়িতে পানি জমে এই মশার বংশবিস্তার বেশি ঘটে। ২০০০ সালে বাংলাদেশে প্রথম ডেঙ্গুর বড় ধরনের প্রকোপ দেখা দেয়।