ডলারের বিপরীতে ভারত পাকিস্তানের মুদ্রার রেকর্ড পতন

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: ডলারের বিপরীতে ভারত ও পাকিস্তানের মুদ্রার রেকর্ড দরপতন হয়েছে। পাকিস্তানের মুদ্রাবাজারে ১ ডলার কিনতে খরচ করতে হচ্ছে ২০০ রুপি।

ভারতীয় রুপির দরপতনেও বৃহস্পতিবার সর্বকালের রেকর্ড গড়েছে। এদিন ডলারপিছু দাম বেড়ে দাঁড়ায় ৭৭ রুপি ৭৩ পয়সা। খবর জিও নিউজ ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের।

লেনদেনের শুরুতে বৃহস্পতিবার ডলারের বিপরীতে পাকিস্তানি রুপির দাম ছিল ১৯৮ দশমিক ৩৯। কিন্তু মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে আন্তঃব্যাংক লেনদেনে তা ২০০ ছাড়িয়ে যায়। ১৯৪৭ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর গত ৭৫ বছরের ইতিহাসে নিজেদের মুদ্রার এই পরিমাণ পতন দেখেনি পাকিস্তান।

চলমান অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় ৬০০ কোটি ডলারের তহবিলের জন্য যখন পাকিস্তানের সরকার আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) কাছে তদবির করছে, সে সময়েই ঘটল মুদ্রার এই দরপতন।

এমন পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ দেশটির মুদ্রার মানের পতন ঠেকাতে এবং অর্থনৈতিক সংকট কাটিয়ে ওঠার বিষয়ে জরুরি বৈঠক ডাকেন। ওই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীকে দেশের আমদানি-রপ্তানি পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়।

পাশাপাশি বিলাসবহুল ও অতিজরুরি নয় এমন ৩৮ পণ্য আমদানির বিষয়ে সরকার যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল, সেটির বাস্তবায়ন সম্পর্কিত প্রতিবেদনও তলব করেন তিনি। ২০১৮ সাল থেকেই অর্থনৈতিক সংকট চলছে পাকিস্তানে। করোনা মহামারিতে তা হয়েছে আরও তীব্র। দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকে মাত্র দেড় মাসের আমদানি ব্যয় মেটানোর মতো ডলার মজুত আছে।

এদিকে ডলারের বিপরীতে ভারতীয় মুদ্রা রুপির মান স্মরণকালের সর্বনিু পর্যায়ে নেমেছে। বৃহস্পতিবার ডলারের বিপরীতে রুপির বিনিময় হার দাঁড়িয়েছে ৭৭ রুপি ৭৩ পয়সা। বুধবার মুদ্রা মান ১৮ পয়সা কমে ৭৭ রুপি ৬২ পয়সায় নেমেছিল। ভারতে মুদ্রাস্ফীতি ও আর্থিক মন্দার প্রভাবে রুপির দাম কমছে।

রাশিয়া গত ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালানোর পর থেকে রুপির দাম পড়তে থাকে। আন্তঃব্যাংক বৈদেশিক মুদ্রাবাজারে বৃহস্পতিবার শুরুতে ডলারপিছু রুপির দাম ছিল ৭৭ রুপি ৭২ পয়সা। এক পর্যায়ে দাম আরও কমে ডলারপিছু দাঁড়ায় ৭৭ রুপি ৭৬ পয়সা। পরে তা হয় ৭৭ রুপি ৭৩ পয়সা।

রুপির দরপতনের প্রভাব পড়েছে ভারতে পুঁজিবাজারে। বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জে সেনসেক্স ১ হাজার ৪১৬ দশমিক ৩০ পয়েন্ট বা ২ দশমিক ৬১ শতাংশ কমে ৫২ হাজার ৭৯২ দশমিক ২৩-তে শেষ হয়েছে। ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে নিফটি ৪৩০ দশমিক ৯০ পয়েন্ট বা ২ দশমিক ৬৫ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৮০৯ দশমিক ৪০