জঙ্গল সলিমপুরের দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী ১৮ মামলার আসামী ইয়াসিনকে গ্রেফতার

ছবি:সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

 কামরুল ইসলাম দুলু: সীতাকুণ্ডের জঙ্গল সলিমপুরে সরকারী কর্মকর্তাদের সামনে ১০নং সলিমপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোহাম্মদ আরিফকে বেধড়ক মারধর করা জঙ্গল সলিমপুরের ত্রাস, দুর্ধষ সন্ত্রাসী ইয়াসিন বাহিনীর প্রধান ইয়াসিনকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃংখলা বাহিনী।

সোমবার দুপুর একটার সময় সন্ত্রাসী ইয়াসিন জামিন নিতে গেলে আদালত চত্ত্বরের আইনজীবি ভবনের ৩১৫ নম্বর কক্ষে অবস্থান করছেন এমন সংবাদ পায় আইনশৃংখলা বাহিনী। গ্রেপ্তারের জন্য ওত পেতে থাকে পুলিশ। এসময় আইনজীবী ভবন হতে বের হলে  পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সীতাকুণ্ড মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সুমন বনিক।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার বিকালে উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের জঙ্গল সলিমপুর এলাকায় স্থানীয় সরকার বিভাগের চট্টগ্রাম বিভাগীয় উপপরিচালক বদিউল আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) নাজমুল আহসান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এল এ) মাসুদ কামাল, সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন, সহকারী কমিশনার ভূমি আশরাফুল আলম, রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর (আরডিসি) মং মারমা ও স্থানীয় চেয়ারম্যান সালা উদ্দিন আজিজ জঙ্গল সলিমপুর পরিদর্শনে যান।

পরিদর্শন শেষে ফেরার পথে গাড়ি থেকে নামিয়ে ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোহাম্মদ আরিফকে বেধরক মারধর করে ইয়াসিন বাহিনীর সন্ত্রাসীরা। হামলায় নেতৃত্ব দেন ইয়াসিন নিজে। এঘটনায় হামলার শিকার ইউপি সদস্য আরিফ এর ছোট ভাই আব্দুল আলিম বাদী হয়ে ইয়াসিনসহ ৬ জনকে আসামি করে সীতাকুণ্ড মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

উল্লেখ্য সন্ত্রাসী ইয়াসীন জঙ্গল সলিমপুরের আলীনগরের ভূমিদস্যু ও পাহাড় খেকো হিসেবে পরিচিত। তিনি দীর্ঘদিন যাবত সলিমপুর এলাকায় সরকারি ও ব্যক্তিমালিকানাধীন জায়গা দখলের রাজত্ব কায়েম করেছিলো। তার নামে বিভিন্ন থানায় হত্যা, গুম, সরকারি জায়গা দখলসহ বিভিন্ন অপরাধের ১৮ টি মামলা রয়েছে।