ছেলেকে জোর করে মাদ্রাসায় রেখে যান মা, পরে মিললো নিথর দেহ

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

ফেনী প্রতিনিধিঃ ফেনীর পুলিশ লাইনস এলাকার মিছবাহুল কুরআন ওয়াস সুন্নাহ মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র ইস্রাফিল হোসেন ইফাত (১৪) এর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার ভোররাতে মাদ্রাসার পাশ থেকে তার লাশটি উদ্ধার করা হয়।পুলিশের প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছে মাদ্রাসার ৬ তলা ভবন ছাদ থেকে পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক হাফেজ মো.ইউনুছ জানান, গত ৫দিন আগে ইফাত মাদ্রাসা থেকে চলে গেলে গত শুক্রবার বিকালে ফের তার মা জোর করে মাদ্রাসায় রেখে যায়। তার নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে মাদ্রাসা কতৃপক্ষ তাকে রাখতে অস্বৃকৃতি জানালেও তার মা রেখে যায়।

একপর্যায় ভোরে পড়ার সময় তাকে ক্লাসে দেখতে না পেয়ে বিভিন্নস্থানে অনেক খোঁজাখুজি করা হয়।এর কিছুক্ষন পর বাড়ির মালিক হাজি রিয়াজ উদ্দিন খবর দেন একজন ছাত্রের লাশ ভবনের পাশে রাস্তায় পড়ে আছে।পরে ৯৯৯ কল দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।ইফাত এর সহপাঠীরা জানায়,জামা আনতে যাওয়ার কথা বলে রাত ৩.৫৫মিনিটে সিঁড়ি দিয়ে ছাদের দিকে ডেকে নিয়ে যায় ইফাত। কিন্ত অন্ধকার হওয়ায় মোবারক আর ছাদে না গিয়ে ৫ তলা থেকে রুমে চলে আসে।পরে ঘটনাটি জানতে পারে সে।

ফেনী মডেল থানার উপ পরিদর্শক মো. ইফরান খান জানান, পাশাপাশি পিবিআই ও কাজ করছে। এটা কি আত্মহত্যা নাকি দুর্ঘটনা তা আমরা খোঁজার চেষ্টা করছি।  নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।ঘটনাস্থল থেকে একটি ভাঙ্গা বালতি জব্দ করা হয়েছে। নিহত ইফাতের গ্রামের বাড়ী কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জগন্নাথ ইউনিয়নের সাত ঘরিয়া গ্রামের ওমান প্রবাসী মো. ইয়াসিনের ছেলে।