ছুটিতে গিয়ে ফাঁসি নিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার

ছবি:সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: ছুটিতে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে এসে ফাঁস নিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লাবনী আক্তার। তিনি ৩০তম বিসিএসে সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে চাকরিতে যোগদান করেন।

বুধবার (২০ জুলাই) রাতের কোনো এক সময় মাগুরায় শ্রীপুর উপজেলার কাদের পাড়া ইউনিয়নের পরালিদহ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সকালে দরজা ভেঙে তার ঝুলন্ত মরদেহ পাওয়া যায়।

লাবনী আক্তার উপজেলার পরালিদহ গ্রামের শফিকুল আজমের মেয়ে। তিনি খুলনা ডিএসবির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

লাবনী আক্তারের বাবা শফিকুল আজম বলেন, ১৭ জুলাই এক সপ্তাহের ছুটিতে লাবনী গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে আসে। গ্রামের বাড়িতে এসে সে শ্রীপুর উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের সারঙ্গ দিয়া গ্রামে নানাবাড়িতে ছিল। বুধবার গভীর রাতে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে। সকালে ডাকাডাকির পরও দরজা না খোলায়, দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

আত্মহত্যার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সাংসারিক বিষয় নিয়ে স্বামীর সঙ্গে লাবনীর কলহ চলে আসছিল। স্বামীর সঙ্গে তার বনিবনা হচ্ছিল না। সেজন্যই হয়তো আমার মেয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।

শ্রীপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রিটন সরকার বৃহস্পতিবার সকালে বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মাগুরা মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।