চীন-রাশিয়া-ব্রাজিলে কয়েক হাজার ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করেছে গুগল

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: চীন, রাশিয়া এবং ব্রাজিলে কয়েক হাজার ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করে দিয়েছে গুগল। যে সব চ্যানেল নেতিবাচক প্রচারণা চালাচ্ছিল তাদের ওপর তদন্ত চালানোর পর প্রতিষ্ঠানটি এই সিদ্ধান্ত নেয়।

চীনের সাথে সংশ্লিষ্ট পাঁচ হাজার ১৯৭টি ইউটিউব চ্যানেল এবং ১৭টি ব্লগারের ব্লগ বন্ধ করে দিয়েছে এই টেক জায়ান্ট।

এ ব্যাপারে এক ব্লগ পোস্টে গুগল জানায়, ‘ওই ইউটিউব চ্যানেলগুলো বেশিরভাগ সময় চীনা ভাষার গান, বিনোদন ও লাইফস্টাইল বিষয়ক স্প্যামি কনটেন্ট আপলোড করত। মাঝেমাঝে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র সম্পর্কিত কনটেন্ট চীনা ও ইংরেজি ভাষায় আপলোড দিতো।’

চীন ছাড়াও রাশিয়ার সাথে সংশ্লিষ্ট ৭১৮টি ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করেছে গুগল।

প্রতিষ্ঠানটি জানায়, ‘চ্যানেলগুলো ইন্টারনেট রিসার্চ অ্যাজেন্সির (আইআরএ) সাথে সংশ্লিষ্ট ছিল। এবং রাশিয়ান ভাষায় কনটেন্ট আপলোড করছিল, যা রাশিয়া এবং দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে সমর্থন করত এবং ইউক্রেন ও পশ্চিমাদের সমালোচনা করত।’

এছাড়া ব্রাজিলের ৭৬টি ইউটিউব চ্যানেলও বন্ধ করে দেয় গুগল। এই চ্যানেলগুলো ব্রাজিলিয়ান পর্তুগীজ ভাষায় কনটেন্ট আপলোড করত এবং ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জায়ার বোলসোনারোকে সমর্থন করত।

গুগল জানায়, ‘তদন্তের অংশ হিসেবে গুগল নিউজ ও ডিসকভারে ওদখা যাওয়ায় রাশিয়ার সাথে যুক্ত আরো আটটি ইউটিউব চ্যানেল ও দুটি ডোমেইন বন্ধ করা হয়েছে।’

এছাড়া রাশিয়াকে সমর্থন করা ও পশ্চিম ইউরোপ এবং ইউক্রেনের সমালোচনামূলক বিষয়বস্তু আপলোড করার জন্য রাশিয়ার ২৭টি ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করেছে গুগল। আর একটি রাশিয়ার পরামর্শক সংস্থার সাথে যুক্ত ৩০টি ইউটিউব চ্যানেল এবং পাঁচটি অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্টও বন্ধ করে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

সূত্র : সিয়াসাত