চাঁদা না দেওয়ায় ডিস ব্যবসায়ীর ওপর হামলা ও ভাই খুন: বন্ধুকযুদ্ধে খুনি নিহত, অস্ত্র উদ্ধার

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

নগরীর চান্দগাঁও এলাকায় ডিস ব্যবসায়ী বড় ভাইকে বাঁচাতে গিয়ে স্থানীয় সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন আপন ছোট ভাই মুহাম্মদ জিয়াদ (২২)। রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় চান্দগাঁও থানাধীন পাঠানিয়াগোদা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

ঘটনার মূল হোতা মো. রাসেল ‍পুলিশের সাথে বন্ধুক যুদ্ধে নিহত হয়েছে। ‍উদ্ধার করা হয়েছে বন্দুকযুদ্ধে ব্যবহৃত সন্ত্রাসীদের অস্ত্র। দিনগত রাতে তাকে গ্রেফতার করার পর তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অস্ত্র উদ্ধার করতে গেলে রাত ২টার পর রাসেলের অনুসারীদের সাথে এ বন্ধুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, জিয়াদের বড় ভাই জাহিদ হোসেন ডিসের ব্যবসা করেন। ১৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় কিছু সন্ত্রাসী জাহিদ হোসেনকে মারধর করলে জিয়াদ তার ভাইকে বাঁচাতে এগিয়ে যায়। সেসময় সন্ত্রাসীরা তার পেটে ছুরিকাঘাত করে। গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের স্বজনের দাবী একই এলাকার আবুল বশরের ছেলে মো. রাসেল চাঁদার টাকার জন্যেই এ খুনের ঘটনা ঘটিয়েছে।সে ওই এলাকার আবুল বশরের পুত্র।

জাহেদ হোসেনের ব্যবসায়ীক পার্টনার ডিস ব্যবসায়ী বিপ্লব চন্দ্র দাশ সিপ্লাসকে বলেন, সন্ত্রাসীরা অনেকদিন ধরে মাসে বিশ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে আসছে। চাঁদা না দিলে তারা ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়ার হুমকীও দেয়। রোববার সন্ধ্যায় এ নিয়ে জায়েদ খুন হয়।

নিহতের বড় ভাই জাহেদ হোসেন বলেন, রাসেল চাঁদার জন্য আমাকে বারবার হুমকি দেতো। রোববার সন্ধ্যায় সে তার সাঙ্গ পাঙ্গ নিয়ে দোকানে চাঁদার জন্য এসে আমাকে কল দেয়। তখন আমি মসজিদে ছিলাম। পরে আমি আসলে তারা আমাকে মারধর করে। এক পর্যায়ে আমার ছোট ভাই জায়েদ বাধা দিলে তারা জায়েদকে ছুরিকাঘাত করলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে তাকে চমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।