চন্দনাইশে শঙ্খ নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

শঙ্খ নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

চন্দনাইশ প্রতিনিধি: উপজেলার বৈলতলী বরমা বরকলে কিছু প্রভাবশালী বালু মহাল পরিবেশ আইন লঙ্ঘন করে অবৈধ ভাবে শঙ্খ নদী থেকে ডেজারমেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলনের প্রতিবাদে এলাকাবাসীর উদ্যোগে শঙ্খ নদীর তীরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

বৈলতলী ডেবারকুল, দ্বীপ পাড়া, জলদাশ পাড়া, নাথ পাড়া, মির্জাবাঙালী এলাকায় প্রায় ২ হাজার মিটার শঙ্খ নদীতে ভাসমান বেইজের ওপর সেলোমেশিন বসিয়ে অবৈধ ভাবে জোরপূর্বক বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছিল স্থানীয় কিছু কতিপয় অসাধু বালু ব্যবসায়ীরা। এখন বর্ষাকালীন ধসের মুখে পড়লে বসত বাড়ী বাঁচাতে আর কোন উপায় না পেয়ে শুক্রবার (৪ জুন) বিকেলে স্থানীয় এলাকাবাসী উদ্যোগে শঙ্খ নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধের দাবিতে প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে।

মানববন্ধনের অভিযোগ করেন , বৈলতলী থেকে বরমা পর্যন্ত শঙ্কার নদী থেকে সেলোমেশিন বসিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করে যাচ্ছে প্রভাবশালীরা। এই বালু উত্তোলনে রাত-দিন শত শত বালু ভর্তি গাড়ি যাওয়া-আসা করে। এতে চলাচলে চরম ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে সড়ক ও নদীর পাড়ে বসবাসরত শতশত পরিবার । ইতিমধ্যে অনেক ঘরবাড়ি নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। যেকোন মুহুর্তে নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশংকা রয়েছে আরো শতশত ঘরবাড়ি স্কুল মসজিদ মাদ্রাসা মন্দির, বৌদ্ধবিহার, শ্মশান সহ চলাচলের সড়কটি গুলো।

এছাড়াও বালু ভর্তি অতিরিক্ত গাড়ি চলাচলের ফলে বৈলতলী সুন্নিয়া মাদ্রাসা সড়ক, বশরত নগর মাদ্রাসা সহ আশেপাশের সড়কের বড়বড় গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। সামান্য বৃষ্টিতে জমে থাকে কাদামাটি। অতিষ্ট হয়ে উঠেছে সড়কে যাতায়াতে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীসহ নানান রকমের ভোগান্তিতে দিন পোহাতে হচ্ছে এলাকাবাসী ।