চন্দনাইশে এক রাতে ৫ গরু চুরি

চোর আটকাতে গিয়ে যুবক গুলিবিদ্ধ

চন্দনাইশ পৌরসভায় এক রাতে পাঁচটি গরু চুরি করে নিয়ে গেছে চোরের দল
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

চন্দনাইশ প্রতিনিধি: চন্দনাইশ পৌরসভায় এক রাতে পাঁচটি গরু চুরি করে নিয়ে গেছে চোরের দল। চোর আটকাতে গিয়ে গরু চোরদের গুলিতে গুরুতর আহত হয়েছেন মো. নাসির উদ্দীন (৩০) নামে এক যুবক।

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে চন্দনাইশ পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ জোয়ারা বড়পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গুলিবিদ্ধ যুবক ওই এলাকার জমির আহমদের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোরশেদুল আলম জানান, বুধবার রাত আড়াইটার সময় দক্ষিণ জোয়ারা বড়পাড়া এলাকায় নুরিয়া ডুলা ফকির মাদ্রাসার পাশে অজ্ঞাতনামা একটি গরু চোরের দল ওই এলাকার ফরিদুল আলমের একটি ও পার্শবর্তী মাহমুদুর রহমান মুন্নার গোয়ালঘর থেকে চারটি গরু চুরি করে ট্রাকে তোলে। নাসির উদ্দীন বিষয়টি টের পেয়ে  চিৎকার করে এবং চোরদের আটকানোর চেষ্টা করে। এ সময় চোরেরা পালানোর সময় তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। এতে তার শরীরে প্রায় ১০ থেকে ১২টি স্প্রিন্টার লাগে। গুলিবিদ্ধ মো. নাসির উদ্দীনকে উদ্ধার করে চন্দনাইশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণের জন্য রেফার করেছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

এ ব্যাপারে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে গরু চুরি ও স্থানীয় যুবক গুলিবিদ্ধ হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে চন্দনাইশ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, সংবাদ পেয়ে রাতেই চন্দনাইশ থানার পুলিশ ফোর্স দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে এলাকা ঘেরাও করে এবং চোর শনাক্তের জন্য সন্দেহজনকভাবে ৩টি গাড়ি আটক করে। তাদেরকে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদকালে ঘটনার সাথে তাদের সংশ্লিষ্টতা না পাওয়ায় গাড়িগুলো ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। গরু চোরের পাইপগান থেকে ছোঁড়া ছড়রা গুলিতে স্থানীয় এক যুবক আহত হয়েছে।

তবে এ ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত থানায় কেউ কোন অভিযোগ দায়ের করেনি। চোর শনাক্তের জন্য আইনগত প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।