চট্টগ্রাম থেকে অপহরণের ৪দিন পর ঢাকা থেকে উদ্ধার:মুক্তিপণের টাকাসহ গ্রেফতার ৩

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

চট্টগ্রাম থেকে অপহরণের চারদিন পর মোঃ হানিফ নামে এক যুবককে ঢাকার শ্যামলীর একটি বাড়ি থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। ওই সময় গ্রেফতার করা হয়েছে অপহরণকারী চক্রের ৩ সদস্যকে।

এসময় তাদের কাছ থেকে মুক্তিপণের পঁচিশ হাজার টাকা ৫টি মোবাইল ফোন, রক্তমাখা বেডশীট, লাইলনের দড়িসহ অপহরণ কাজে ব্যবহৃত বেশ কিছু আলামত জব্দ করা হয়।

গত ২৪ সেপ্টেম্বর হানিফকে চট্টগ্রামের হালিশহর এলাকা থেকে ডাবের পানির সঙ্গে চেতনানাশক খাইয়ে অপহরণ করে ঢাকার শ্যামলীর একটি বাড়িতে এনে রাখা হয়।শনিবার রাতে র‌্যাব-১১’র একটি টিমের অভিযানে হানিফকে উদ্ধার এবং অপহরণের সঙ্গে জড়িত ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মোঃ কামরুল ইসলাম দিপু (৩২), মোঃ কামাল হোসেন(২৮) ও মিঠুন কর্মকার (২৮)। আজ রবিবার বিকেলে র‌্যাব-১১’র পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি সাংবাদিকদের জানানো হয়।

র‌্যাব-১১’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন চৌধুরী স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, হানিফকে অপহরণের পর অপহরণকারীরা তাকে একটি মাইক্রোবাস যোগে ঢাকা শ্যামলীর রিংরোড এলাকার একটি বাসায় এনে রাখে। সেখানে তারা হানিফকে মারধর করে ছবি তুলে তার পরিবারের কাছে পাঠিয়ে ১৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে এবং জানায় হানিফকে নিয়ে তারা নারায়ণগঞ্জে অবস্থান করছে। অপহরণকারীদের চাহিদা অনুযায়ী প্রাথমিক ভাবে হানিফের পরিবার বিকাশের মাধ্যমে ২৫ হাজার টাকা পাঠায় এবং বিষয়টি র‌্যাব-১১’র নারায়ণগঞ্জ সদর দফতরে অবহিত করে।

তিনি আরও জানান, গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে র‌্যাব অপহরণকারীদের অবস্থান সনাক্ত করে। ওই সময় অপহরণকারীদের ৩ জন ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকার জহুরী মার্টেকের একটি দোকান থেকে বিকাশ থেকে মুক্তিপণের ২৫ হাজার টাকা উত্তোলণের সময় দিপু, কামাল ও মিঠুনকে আটক করে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে শ্যামলীর একটি বাড়ির ৩য় তলা থেকে অপহৃত হানিফকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট থানায় আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।