চট্টগ্রামে মাদক মামলায় বাসের চালকসহ ৪ জনের কারাদণ্ড

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম নগরী চান্দগাঁওয়ে মাদক মামলায় রিলাক্স পরিবহনের চালক, সুপারভাইজার, হেলপার ও সহযোগীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায়ের সময় চার আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- চাঁদপুরের মতলব উত্তর থানার দক্ষিণ গাজীপুর এলাকার কাজী মেজবাহ উদ্দিনের ছেলে বাসচালক কাজী শিশির আহম্মেদ, ঝালকাঠি জেলার সদর থানার সুগন্দিয়া এলাকার মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে ও বাসের সুপারভাইজার মো. সোহেল, কুমিল্লার দাউদকান্দি থানার আমিরাবাদ এলাকার আব্দুল সাত্তারের ছেলে হেলপার মো. আষাঢ় ও কক্সবাজারের সদর থানার ঝিলংজা এলাকার মো. ইসমাইলের ছেলে সহযোগী মো. রুবেল।

রবিবার (৩০ অক্টোবর) দুপুরে চতুর্থ অতিরিক্ত চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শরীফুল আলম ভূঁঞার আদালত এ রায় দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের বেঞ্চ সহকারী ওমর ফুয়াদ। তিনি বলেন, মাদকের মামলায় বাস চালক কাজী শিশির আহম্মেদ ও সুপারভাইজার মো. সোহেলকে ১৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড, ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া বাসের হেলপার মো. আষাঢ় ও সহযোগী মো. রুবেলকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায়ের সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ২৮ নভেম্বর চান্দগাঁও থানার যমুনা স্কয়ার কমিউনিটি সেন্টারের সামনে রিল্যাক্স পরিহনের একটি বাস থেকে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা উদ্ধার করে র‌্যাব-৭। এ সময় বাসের চালক কাজী শিশির আহম্মেদ, সুপারভাইজার মো. সোহেল খাঁন ও হেলপার মো. আষাঢ় প্রকাশ বোরহানকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় র‌্যাব-৭ চান্দগাঁও ক্যাম্পের নায়েব সুবেদার সুকুমার চন্দ্র রায় চান্দগাঁও থানায় মামলা করেন। ২০২০ সালের ২ নভেম্বর আদালতে ৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। আদালত ১২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।