চকরিয়ায় বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কের কর্মচারী মদসহ আটক

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

কক্সবাজারের চকরিয়ায় চোলাই মদসহ বাদশা মিয়া (৩৮) নামে এক ব্যক্তি আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থাণীয় জনতা।

গত রবিবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের রংমহল এলাকা থেকে স্থানীয় জনতা তাকে চোলাই মদসহ আটক করে থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

আটক বাদশা মিয়া চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের গাড়ি চালক। সোমবার (৭ অক্টোবর) বিকালে চোলাই মদসহ আটক বাদশা মিয়াকে ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে সোপর্দ করে পুলিশ। বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে স্থাণীয় ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন বলেন, ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের অভ্যন্তরে দর্শনার্থীদের ভ্রমনের জন্য ব্যবহৃত গাড়ির চালক বাদশা মিয়া রবিবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে মাদক সেবন করে চোলাই মদসহ পার্কে ফেরার পথে ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের রংমহল এলাকায় স্থানীয় জনতা আটক করে। পরে বাদশা মিয়াকে থানা পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের রংমহল এলাকার ইউপি সদস্য জসিম উদ্দিন বলেন, ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের গাড়ি চালক বাদশা মিয়া দীর্ঘ সময় ধরে নিজে মাদক সেবনের পাশাপাশি পার্কের অভ্যন্তরে বিভিন্ন মাদক সেবীদের কাছেও সরবরাহ করে আসছিল। দীর্ঘদিন পার্কের অভ্যন্তরে গাড়ি চালক বাদশা মিয়ার মাদক সেবন এবং বিক্রির বিষয়টি ওপেন সিক্রেট হলেও রহস্যজনকভাবে তার বিরুদ্ধে কোন ধরনের আইনগত পদক্ষেপ গ্রহন করেননি পার্ক কর্তৃপক্ষ। আর এ সুযোগে পার্কের অভ্যন্তরে বিভিন্ন মাদকের রামরাজত্ব কায়েম করে পার্কের গাড়ি চালক বাদশা মিয়া। এ ব্যাপারে ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলামের বক্তব্য জানতে তার মুটোফোনে একাধিকার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান বলেন, চোলাই মদসহ ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের গাড়ি চালক বাদশা মিয়াকে আটকের পর স্থাণীয় জনতা পুলিশের কাছে সোপর্দ করলে সোমবার (৭ অক্টোবর) বিকালে তাকে ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে সোপর্দ করা হয়।

পরে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্দেশনা মতে চোলাই মদসহ আটক বাদশা মিয়ার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশনা দিয়ে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয় বলেও জানান তিনি।