গার্ডার চাপায় নিহতদের পরিবারকে ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের রুল

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: রাজধানীর উত্তরায় গার্ডার চাপায় নিহত পাঁচজনের পরিবারকে পাঁচ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে রুল দিয়েছে হাইকোর্ট। একই সাথে গত পাঁচ বছরে প্রকল্পের নিরাপত্তায় কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে তা জানতে চেয়েছে আদালত।

বুধবার (১৭ আগষ্ট) বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

গত সোমবার ঢাকার উত্তরায় জসীম উদ্দীন সড়কে বিআরটি প্রকল্পের কাজ চলার মধ্যে একটি গার্ডার ক্রেন দিয়ে তোলার সময় তা পড়ে একটি চলন্ত প্রাইভেট কারের ওপর। এতে নিহত হন দুই শিশুসহ গাড়িটির পাঁচ আরোহী।

এই ঘটনায় নিহতের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ, প্রকল্পের নিরাপত্তাসহ কয়েকটি নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে তিনটি রিট করা হয়। একটি রিটের প্রাথমিক শুনানি শেষে ক্ষতিপূরণ নিয়ে রুল দেয় হাইকোর্ট।

এ ছাড়া বিআরটি প্রকল্পে নিরাপত্তায় নেয়া পদক্ষেপের বিষয়েও জানতে চায় আদালত।

ব্যাপক সমালোচনার মধ্যে দুইদিন পর বুধবার সকালে হাই কোর্টে রিট আবেদন করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী জাকারিয়া খান। এরপরই আদালতের রুল হয়।

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ সচিব, বিআরটি কোম্পানির চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক, প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক এবং ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চীনা গ্যাঝুবা গ্রুপ লিমিটেডের সমন্বয়ককে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে হবে স্বরাষ্ট্র সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এ বি এম শাহজাহান আকন্দ মাসুম।

আদেশের পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, নিহতদের পরিবারকে পাঁচ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না, এ মর্মে রুল জারি করেছেন আদালত। পাশাপাশি বিআরটি’র চলমান প্রজেক্টে গত ৫ বছরে জনগণের নিরাপত্তায় কী কী ব্যবস্থা নিয়েছে তা আগামী ৬০ দিনের মধ্যে জানাতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এই ঘটনায় ইতোমধ্যে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। কমিটির প্রাথমিক অনুসন্ধানে ঠিকাদারি কর্তৃপক্ষের গাফিলতির প্রমাণ মিলেছে।

নিহতদের পরিবার উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি মামলাও করেছে। চীনা ঠিকাদার কোম্পানি, ক্রেন চালক এবং প্রকল্পের নিরাপত্তার দায়িত্বপ্রাপ্তদের অবহেলায় এই প্রাণহানি হয়েছে বলে সেখানে অভিযোগ করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও দোষীদের চিহ্নিত করে শাস্তির আওতায় আনার নির্দেশ দিয়েছেন।