ক্রান্তিকালে শ্রাবন্তী

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। তার ব্যক্তিগত জীবন মানেই চটপট মসলাদার কিছু। সুতরাং অভিনেত্রীর খবর তো ট্রোল হবেই। কিন্তু ট্রোলারদের কখনোই জবাব দিতে দেখা যায় না তাকে। কিন্তু নায়িকাকে নিয়ে চর্চা তো লেগেই থাকে। পর পর নতুন দুই খবরে তিনি।

একদিকে গুঞ্জন তার প্রেমে বিচ্ছেদ। অন্যদিকে আদালতে মিথ্যে সাক্ষ্য দেওয়ার অভিযোগ তুলে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে নতুন এক মামলা করেছেন রোশন সিং। সিপিআরসি ৩৪০ ধারায় শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে রোশনের আইনজীবী। একে ‘পারজুরি’ মামলা বলা হয়। শপথ নিয়ে যদি কোনো ব্যক্তি বা আইনি মামলা চলাকালীন মিথ্যে বয়ান দেন, তবে তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তোলা যায়।

আচমকা অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে কেন এ ধরনের অভিযোগ তুললেন তার তৃতীয় স্বামী? জানা গিয়েছে, শুধু ডিভোর্স নয়, রোশনের বিরুদ্ধে খোরপোষের মামলাও দায়ের করেছিলেন শ্রাবন্তী। মাসিক সাত লাখ টাকা করে খোরপোষের দাবি করেন টলিউডের প্রথম সারির নায়িকা। সেই সময় নিজের আয়-ব্যয়ের খতিয়ান নথিভুক্ত করেছিলেন তিনি।

সেখানেই নাকি বেশ কিছু তথ্য ভুয়া ছিল বলে অভিযোগ রোশনের। আলিপুর আদালতে এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে আগামী ১৬ ডিসেম্বর। ২০২০ সালের পূজার সময় থেকে এক ছাদের তলায় থাকেন না শ্রাবন্তী ও রোশন। এরপর সময় যত গড়িয়েছে ততই দুজনের দাম্পত্য কহল প্রকাশ্যে এসেছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় কাদা ছোড়াছুড়িও কম হয়নি।

রোশনের সঙ্গে সংসার করতে চান না অভিনেত্রী- তা স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিয়েছেন শ্রাবন্তী। কাগজে কলমে তিন নম্বর বিয়ের পাট চুকিয়ে ফেলতে চান অভিনেত্রী। বিগত দুই বছর ধরে চলছে এই মামলা। অভিনেত্রী ভালোবেসেই তৃতীয় বিয়ে করেছিলেন রোশন সিং। কিন্তু কয়েকদিনের মধ্যেই আলাদা হন দুজনে।

এরপর কয়েক মাসের মধ্যেই আবার প্রেমে পড়েন শ্রাবন্তী। অভিরূপ নাগ চৌধুরী নামে এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে শ্রাবন্তীর প্রেমের খবর ছড়িয়ে পড়ে চারদিকে। এতদিন শ্রাবন্তী-অভিরূপকে প্রায়ই একসঙ্গে দেখা যেত টলিউডের নানান অনুষ্ঠানে। দুর্গাপূজার সময়ও শ্রাবন্তীর হাত ধরে টলিউড তারকাদের ঘরোয়া অনুষ্ঠানে যেতে দেখা গেছে অভিরূপকে।

তবে এবার শোনা যাচ্ছে, শ্রাবন্তী-অভিরূপের সম্পর্কে চিড় ধরেছে। যদিও তারা প্রকাশ্যে কখনোই পরস্পরককে ভালোবাসার কথা স্বীকার করেননি। তবে একসঙ্গে পূজা-পার্বণ, নিমন্ত্রণ-অনুষ্ঠান, দেশে-বিদেশে ছুটি কাটানো সর্বত্রই শ্রাবন্তীর সঙ্গে দেখা গেছে অভিরূপকে।
সোশ্যাল মিডিয়াতে ‘ফ্যান-বয়’ অভিরূপ আর শ্রাবন্তীর একসঙ্গে থাকা সবার ভালোই লাগত। কিন্তু কয়েক মাসের মধ্যেই শেষ হয়ে গেল সব কিছু। এরমধ্যে রটেছে, বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে শ্রাবন্তী-অভিরূপের। তবে কোনো তিক্ততার মাধ্যমে নয়, পারস্পরিক বোঝাপড়ার মাধ্যমেই আলাদা হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।

এই বিষয়ে শ্রাবন্তীকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, তারা নাকি একই আবাসনে থাকেন। তারা সবসময় ভালো বন্ধু, কোনো বিচ্ছেদ হয়নি তাদের। অভিরূপের কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডরও নাকি শ্রাবন্তী। এখন দেখা যাক, ক্রান্তিকাল পার করে নায়িকা আবার নতুন সম্পর্ক জুড়তে পারেন কিনা। এ টালিকন্যা পরিচালক রাজীব বিশ্বাসকে ভালোবেসে ছিলেন একসময়।

ভালোবাসার টানে মাত্র ১৬ বছর বয়সে ভালোবাসার হাত ধরে বিয়ে করেছিলেন। তারপর তাদের এক পুত্র সন্তানও হয়। তাদের একমাত্র পুত্রের নাম অভিমন্য। অনেক দিন আলাদা থাকার পর, ২০১৬ সালে কাগজে-কলমে আলাদা হন রাজিব ও শ্রাবন্তী। ছেলে যদিও শ্রাবন্তীর তত্ত্বাবধানেই থাকে।

এরপরেই মডেল কৃষাণ বিরাজকে বিয়ে করে বসেন শ্রাবন্তী। তবে কয়েক মাসের মধ্যে ভেঙে যায় সেই সম্পর্ক। তারপর রোশন সিং তার জীবনে আসেন। এবং সেই সঙ্গে ২০১৯ সালের জুন মাসে গাঁটছড়া বাঁধেন নায়িকা। কিন্তু শ্রাবন্তীর তৃতীয় বিয়েও টিকিয়ে রাখতে পারেননি।