কর্ণফুলীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা খুনের ঘটনায় প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

প্রতীকী ছবি
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক নেতা রমজান আলী (৩৫) খুনের প্রধান আসামি মো. শহিদুল ইসলাম হৃদয়কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৮ জুন) রাতে ঢাকার উত্তরা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ বলেন, রমজান খুনের ৪৮  ঘণ্টার মধ্যে প্রধান আসামি শহিদুলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ দুপুর দেড়টায় সিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে।

তিনি বলেন, এর আগে রমজান খুনের ঘটনায় সাতজনের নাম উল্লেখ করে কর্ণফুলী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন রমজানের ভাই আলমগীর। এতে শহিদুল ইসলামসহ ৭ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) রাত আটটার দিকে ইছানগর এলাকায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রমজান আলী (৩৫) ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছিল পুলিশ।

নিহত রমজান ইছানগর পাথরঘাটা বাদশা ফকিরের বাড়ির বাদশা ফকিরের ছেলে। তিনি কর্ণফুলী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের পাঠাগার সম্পাদক ছিলেন বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার কর্ণফুলী থানার চরপাথরঘাটা ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। রমজান নির্বাচনে পরাজিত মেম্বার প্রার্থী ইসহাকের অনুসারী ছিলেন। নির্বাচনে জয়ী সাইদুল হক মেম্বরের কয়েকজন অনুসারী আজ (বৃহস্পতিবার) রাতে রমজানকে মারধর ও ছুরিকাঘাত করেন।

পরে গুরুতর আহত অবস্থায় রমজানকে উদ্ধার করে রাত ৮টা ৫০ মিনিটের দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।