এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে গাঁজা বৈধ করলো থাইল্যান্ড

খাদ্য এবং পানীয়তে এর ব্যবহার বৈধ করলেও দেশটিতে গাঁজা ধূমপান এখনো অবৈধ।

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: বৃহস্পতিবার (৯ জুন) এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে গাঁজা চাষ এবং খাদ্য ও পানীয়তে এর ব্যবহার বৈধ করেছে থাইল্যান্ড। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

খাদ্য এবং পানীয়তে এর ব্যবহার বৈধ করলেও দেশটিতে গাঁজা ধূমপান এখনো অবৈধ।

দেশটি তার কৃষি ও পর্যটন খাতকে সম্প্রসারণের লক্ষ্যে এই উদ্যোগ নিয়েছে বলে উল্লেখ করা হয় প্রতিবেদনে। তবে, খাদ্য এবং পানীয়তে এর ব্যবহার বৈধ করলেও দেশটিতে গাঁজা ধূমপান এখনো অবৈধ।

ব্যথা এবং ক্লান্তি দূর করার জন্য ৪ বছর আগে ঔষধি হিসেবে মারিজুয়ানা বৈধ করে থাইল্যান্ড।

তবে এখনই উরুগুয়ে ও কানাডার মতো গাঁজার ধূমপান বৈধ করার কোনো পরিকল্পনা নেই তাদের।

গাঁজাকে একটি অর্থকরী ফসল হিসাবে চিহ্নিত করে কৃষকদেরকে এর উৎপাদন বাড়ানোতে উৎসাহিত দিচ্ছে দেশটি।

শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে থাইল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য মন্ত্রীর ১ মিলিয়ন মারিজুয়ানার চারা বিতরণ প্রকল্প।

তবে এর জন্য গাঁজা চাষীদের PlookGanja নামক একটি সরকারি অ্যাপে নিবন্ধন করে গাঁজা চাষ করতে হবে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার রিপোর্ট থেকে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত প্রায় ১ লাখ মানুষ এতে সাইন আপ করেছেন।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, গাঁজার নির্যাস থেকে তৈরি প্রসাধনী এবং খাদ্যসহ ১ হাজার ১৮১টি পণ্য অনুমোদন করেছে তারা।

প্রতিবেদন থেকে আরো জানা গেছে, এই শিল্প থেকে ২০২৬ সালের মধ্যে ৪৩৫ মিলিয়ন ডলার আয়ের আশা করছে দেশটি।