উখিয়ার মণ্ডপে মণ্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি, ঝুঁকিপূর্ণ ৩টি পূজা মণ্ডপ

উখিয়ার মণ্ডপে মণ্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি, ঝুঁকিপূর্ণ ৩টি পূজা মণ্ডপ।
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

উখিয়া প্রতিনিধি: সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার শারদীয় দূর্গা পূজার ১৬টি মণ্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি৷ তারমধ্যে ১টি কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে৷ তবে ৩টি পূজা মণ্ডপ ঝুঁকিপূর্ণের মধ্যে রয়েছে বলে জানিয়েছেন উখিয়া পূজা উৎযাপন পরিষদ।

শনিবার মহাষষ্ঠীর মঙ্গলপ্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও দেবীর মুখোন্মোচনের মধ্যদিয়ে স্বাড়ম্বরে শুরু হতে যাচ্ছে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা।

উখিয়ার বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ ঘুরে দেখা গেছে, উখিয়া জুড়ে এখন বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ। শেষ পর্যায়ে কোন কোন মণ্ডপে চলছে রংতুলির কাজ, ইতোমধ্যে বিভিন্ন মণ্ডপে চলছে উৎসবের ব্যাপক প্রস্তুতি। আবার কোথাও চলছে সাজ-সজ্জা, প্যান্ডেল ডেকোরেশনের কাজ। অপরদিকে কেনা কাটায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। জামা কাপড় তৈরি, কেনা-কাটায় সরগরম বিপণীবিতানগুলোও।

এদিকে দেবী দূর্গাকে বরণ করতে নতুন সাঁজে নতুন রূপে হাজারো সনাতন ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষ অধীর আগ্রহে উন্মুখ হয়ে আছে।

উখিয়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি স্বপন শর্মা রনী বলেন, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে এবারের দুর্গা উৎসব পালনে সব ধরনের প্রস্তুতি এখন শেষ পর্যায়ে। মণ্ডপগুলোতে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী কাজ করবে।

তিনি আরও বলেন রামুর আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালো থাকায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মাঝে কোন ধরনের শংকা নেই। সরকারে পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত সাহায্য সহযোগীতা পাওয়া গেছে এবং প্রতিটি মন্ডপেও নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এ জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি সবাইকে শারদীয়া দূর্গা পূজা শুভেচ্ছা জানান তিনি।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ইঞ্জিনিয়ার হেলাল উদ্দিন জানান, এদিকে কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরে শারদীয় দূর্গাপূজা মণ্ডপে সার্বক্ষণিক স্বেচ্ছাসেবকের পাশাপাশি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত থাকবে, এতে দূর্গাপূজা নির্বিঘ্নে উৎযাপন করতে পারবে৷

উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী বলেন, উখিয়ার ঝুঁকিপূর্ণ পূজা মণ্ডপে সিসি টিভির আওতায় আনা হয়েছে৷ তাছাড়া উখিয়া উপজেলা আগামীকাল আওয়ামী লীগের একটি টিম পরিদর্শন করবেন৷

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মোহাম্মদ আলী জানান, হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দূর্গা পূজা উপলক্ষ্যে উখিয়া থানা পুলিশের পক্ষ থেকে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। পূজা মণ্ডপ গুলোকে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। পূজার শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে পুলিশ প্রশাসন সদা তৎপর থাকবে।

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইমরান হোসাইন সজীব জানান, উখিয়ায় সর্ব মোট ১৬ টি পূজা মণ্ডপে দূর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি পূজা মণ্ডপে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা যাতে সুন্দরভাবে পূজা পালন করতে পারে সে লক্ষ্যে আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা সার্বক্ষনিক দায়িত্ব পালন করবেন। পাশাপাশি পূজা মণ্ডপের নিজস্ব ভোলান্টিয়ার সদস্যরাও সক্রিয় থাকবে।