উখিয়ার ইউএনওর হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো বাল্যবিবাহ

ছবি:সিপ্লাসটিভি.নিউজ
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

মোহাম্মদ ইব্রাহিম মোস্তফা, উখিয়া: কক্সবাজারের উখিয়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল এক স্কুলছাত্রী (১৬)।

ওই স্কুলছাত্রী উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের হরিণমারা এলাকায় বাসিন্দা ও আবুল কাশেম নুরজাহান চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী। আজ শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সোনারপাড়া এলাকার ওসমান গণীর সঙ্গে ওই স্কুলছাত্রীর বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। সে অনুযায়ী ওই স্কুলছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে বিয়ের সব আয়োজন সম্পন্ন করা হয়। পরবর্তীতে স্থানীয় বাসিন্দা ও সাংবাদিকরা ওই ছাত্রীর বিয়ের খবর পেয়ে প্রশাসনকে অবহিত করে।

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরান হোসাইন সজিব শুক্রবার বিকেলে মেয়ের বাড়ি গিয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেন। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইমরান হোসাইন সজিব বলেন, খবর পেয়ে হরিণমারা গ্রামে গিয়ে এর সত্যতা পেয়ে বিয়েটি বন্ধ করা হয় এবং ছাত্রীকে পড়াশোনা চালিয়ে নেওয়ার জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।” পাশাপাশি মেয়েকে ১৮ বছরের আগে বিয়ে না দেওয়ার শর্তে তাঁর কাছ থেকে মুচলেকা নেওয়া হয়।

উখিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি সাঈদ মোহাম্মদ আনোয়ার বলেন, “বাল্যবিবাহ একটি সামাজিক ব্যধি। উখিয়ায় সাম্প্রতিক সময়ে আইন অমান্য করে বাল্য বিবাহের প্রবণতা বেড়েছে। আশা করছি বাল্য বিবাহে বন্ধে উপজেলা প্রশাসনের তৎপরতা এভাবে ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।”