আ.লীগ,বিএনপির সংঘর্ষে ৪ গুলিবিদ্ধসহ আহত ২০

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: বগুড়ার গাবতলীতে বিএনপির সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘চড় মারার’ হুমকি দেওয়াকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতাকর্মীদের মাঝে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। রোববার দুপুরের এ ঘটনায় ৪ জন গুরিবিদ্ধসহ উভয়পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ শটগান দিয়ে পাঁচ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে।

বিএনপি দাবি করেছে, তাদের চারজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। আহতদের বগুড়ার বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এ হামলার জন্য বিএনপি ও আওয়ামী লীগে একে অপরকে দায়ী করছে।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলী হায়দার চৌধুরী জানান, প্রধানমন্ত্রীকে চড় মারার হুমকি দেওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় বিএনপি ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। কেউ আহত হওয়ার খবর তাদের কাছে নেই। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। রাবার বুলেট নিক্ষেপ করায় কেউ গুলিবিদ্ধ হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গত শুক্রবার বগুড়ার গাবতলীতে উপজেলা বিএনপির সম্মেলনে জেলা মহিলা দলের যুগ্ম সম্পাদক সুরাইয়া জেরিন রনি প্রধানমন্ত্রীকে চড় মারার হুমকি দেন। ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল হলে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ হন। জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি শনিবার রাতে গাবতলী থানায় সুরাইয়া জেরিন রনির বিরুদ্ধে এজাহার করেন।

তিনি জানান, এ ঘটনার প্রতিবাদে রোববার বেলা ১২টার দিকে গাবতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। এ সময় বিএনপির নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে গাবতলী থানার সামনে এলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ শুরু হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ শটগান দিয়ে পাঁচ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

বিএনপির নেতাকর্মীরা দাবি করেছেন, তাদের অন্তত চারজন গুলিবিদ্ধসহ ১৫ জন আহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধরা হলেন- গাবতলী পৌর যুবদলের সাবেক আহবায়ক হারুনুর রশিদ, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি এমআর হাসান, দুর্গাহাটা ইউনিয়ন ছাত্রদলের সভাপতি আশিক ইসলাম এবং উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম। তাদের বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তিনি আওয়ামী লীগের মিছিলে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে দাবি করেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা তাদের নেতাকর্মীদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও লুটপাট করেছে। প্রতিবাদে মিছিল বের করলে পুলিশ গুলিবর্ষণ ও লাঠিচার্জ করেছে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীকে চড় দেওয়ার হুমকির ঘটনায় জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি শনিবার রাতে গাবতলী থানায় মহিলা দল নেত্রী সুরাইয়া জেরিন রনির বিরুদ্ধে এজাহার দিয়েছেন।

তবে গাবতলী থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম জানান, ওই ঘটনায় জিডি হয়েছে।