আবেগাপ্লুত প্রধানমন্ত্রী

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত সুধী সমাবেশে বক্তব্য দিতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে আয়োজিত সুধী সমাবেশে বক্তব্য দেওয়ার সময় বাবা-মায়ের কথা স্মরণ করে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পঁচাত্তরের পর রিফিউজির মতো থাকতে হয়েছে। আওয়ামী লীগ আমাকে সভাপতি নির্বাচিত করায় বাংলাদেশে আসতে পেরেছি। আমি মনে করি আমার বাবা-মায়ের আশীর্বাদের হাত সবসময় আমার মাথার ওপর আছে। আমার মতো একজন সাধারণ মানুষ এত কাজ করতে পারতাম না।

শেখ হাসিনা বলেন, আমি কৃতজ্ঞতা জানাই বাংলাদেশের মানুষের কাছে যারা আমাকে বার বার নির্বাচিত করেছেন। আমি একটা লক্ষ্য নিয়েই বাংলাদেশে এসেছিলাম। বাংলার মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করাই আমার লক্ষ্য।

বহুল প্রতীক্ষিত পদ্মা সেতু প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তিনি আরও বলেন, পদ্মা সেতু শুধু একটি সেতুই নয়, এটা আমাদের মর্যাদা ও সক্ষমতার প্রতীক। এটা আমাদের আবেগ, বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি। পদ্মা সেতুর জন্য আমি গর্ববোধ করি।

দেশের কোটি কোটি মানুষের সঙ্গে আমিও আজ আনন্দিত, গর্বিত ও উদ্বেলিত উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, অনেক বাধা-বিপত্তি উপেক্ষা করে আর ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে প্রমত্ত পদ্মার বুকে আজ বহু কাঙ্ক্ষিত সেতু দাঁড়িয়ে গেছে। এ সেতু শুধু ইট-সিমেন্ট-স্টিল-লোহা বা কংক্রিটের একটি অবকাঠামো নয়, এ সেতু আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব, আমাদের সক্ষমতা আর মর্যাদার প্রতীক। এ সেতু বাংলাদেশের জনগণের। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে আমাদের আবেগ, আমাদের সৃজনশীলতা, আমাদের সাহসিকতা, সহনশীলতা আর জেদ।