আনোয়ারা যুবলীগের নবগঠিত আহবায়ক কমিটিকে সংবর্ধনা

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

আনোয়ারা উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের নবগঠিত আহবায়ক কমিটিকে সংবর্ধিত করা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার (০৪ অক্টোবর) বিকালে উপজেলার বন্দর কাফকো সেন্টারে বৈরাগ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে বৈরাগ ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সোলাইমানের সভাপতিত্বে ও যুবলীগ নেতা হাসানুুর রশিদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীগের সভাপতি অধ্যাপক এম.এ মান্নান চৌধুরী, প্রধান বক্তা ছিলেন ভূমি মন্ত্রীর একান্ত সচিব রিদুয়ানুল করিম চৌধুরী সায়েম।

বিশেষ অতিথি সাধারণ সম্পাদক এম.এ মালেক, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য এস. এম আলমগীর চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী, মুক্তিযোদ্ধা জামাল উদ্দিন, বৈরাগ ইউনিয়ন আওয়ামীগের সভাপতি নুর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরী, কন্ট্রাক্টর আনোয়ার হোসেন, যুবলীগের আহ্বায়ক শওকত ওসমান, যুগ্ম আহ্বায়ক অনুপম চক্রবতী বাবু, এম. মালেক চৌধুরী, সদস্য এম. নজরুল ইসলাম প্রমুখ। সভায় উপজেলা আওয়ামীগের অঙ্গ সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। রিদুয়ানুল করিম চৌধুরী সায়েম বলেন, শেখ হাসিনা সরকার কোন সন্ত্রাস চাঁদাবাজি টেন্ডারবাজদের প্রশ্রয় দেয় না।

ভূমিমন্ত্রীর নির্দেশে যুবলীগের আহ্বায়াক কমিটি গ্রহন করা হয়েছে। যারা কমিটিতে আসেনি তাদের হতাশ হওয়ার কোন কারণ নেই পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করা হবে। খুবই শীঘ্রই ভূমিমন্ত্রীর নির্দেশে যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেয়া গঠন করা হবে। বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির কোন কর্মকাণ্ডে যদি স্থানীয়রা ক্ষতিগ্রস্ত হয় তাহলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না এটা আমাদের নেতা ভূমিমন্ত্রীর নির্দেশ। তিনি আরো বলেন, রাজনীতিদের তরুণদেরও সুযোগ দিতে হবে। কোন নেতার বাসায় হাজিয়া দিয়ে নেতা হওয়া যাবে। মাঠ পর্যায়ে যারা দলের জন্য কাজ করছে তাদের দল মূল্যায়ন করছে এবং করবে। কোন বির্তকৃত ব্যক্তিকে আমাদের নেতা আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয়নি দিবে ও না। যদি কেউ দলের নাম ভাঙ্গিয়ে চাঁদাবাজি টেন্ডারবাজি করে তাদের জন্যও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।