আগামীকাল দেশে ১০০টি সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

আগামীকাল দেশে ১০০টি সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: আগামীকাল সোমবার দেশে ১০০টি সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সিলেটসহ তিন বিভাগের ২৫টি জেলায় নির্মিত এসব সেতু প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করবেন বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

রোববার সকালে রাজধানীর উত্তরার আজমপুর থেকে গাজীপুরের টঙ্গী পর্যন্ত বিআরটি প্রকল্পের ঢাকামুখী লেনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। 

ওবায়দুল কাদের বলেছেনআগামী বছর নির্বাচন। এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নতুন কোনও প্রকল্প হাতে নেবেন না।

তিনি বলেন, গাজীপুরে মহাসড়কে দুর্ভোগ কমাতে রাজধানীমুখী ফ্লাইওভারের দশমিক কিলোমিটার দুটি লেন খুলে দেওয়া হলো। আগামী মেজুনের মাঝে প্রকল্পটি যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে। ঢাকাময়মনসিংহ মহাসড়কের দুটি লেন চালু হওয়ায় ঢাকামুখী যানবাহনের চাপ অনেক কমবে। এতে ফ্লাইওভারের বাকি কাজ গতিশীল হবে। প্রকল্পটির ৭৮ দশমিক ৪৫ শতাংশ কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে।

এসময় মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী মোজাম্মেল হক, যুব ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরন, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোল্লা নজরুল ইসলাম, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উলতাহ খান, সড়ক সচিব এবিএম আমিনুল্লাহ নুরী, সেতু সচিব মনজুর হোসেন, সেতু বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী লিয়াকত আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিআরটি প্রকল্পের তথ্যমতে, বাস ্যাপিড ট্রানজিট বা বিআরটি প্রকল্পে ২০ দশমিক ৫০ কিলোমিটার সড়কের মধ্যে উত্তরা থেকে টঙ্গীর চেরাগ আলী পর্যন্ত সাড়ে চার কিলোমিটার এলিভেটেড বিআরটি লেন এবং বাকি ১৬ কিলোমিটার সমতলে থাকবে। প্রকল্পের জন্য ৬টি ফ্লাইওভার নির্মাণ করা হচ্ছে।

এর মধ্যে টঙ্গী থেকে হাউসবিল্ডিং পর্যন্ত . কিলোমিটার ফ্লাইওভারের ঢাকামুখী দুটি লেন রোববার যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এতে দুই কিলোমিটারের বেশি সড়কে ঢাকামুখী যানবাহনগুলো অনেকটাই নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারবে বলে মনে করছে প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা।

প্রসঙ্গত, বাসের জন্য বিশেষায়িত লেন তথা বিআরটি প্রকল্পটি ২০১২ সালে সরকারের অনুমোদন পায়। পদ্ধতিতে সড়কের মাঝে দুই লেনে শুধু বিশেষায়িত বাস চলাচল করবে। ২০১৬ সালে বিআরটি চালুর পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে এই প্রকল্পের নির্মাণ কাজ শুরু হয়।