অবসরের ঘোষণা দিলেন হিগুইয়ান

অবসরের ঘোষণা দিলেন হিগুইয়ান।
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: পেশাদার ফুটবলকে বিদায় জানিয়ে দিলেন গঞ্জালো হিগুইয়ান। মাত্র ৩৪ বছর বয়সেই সব ধরনের ফুটবল থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিলেন এই আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। বিদায় বেলা কান্না আটকাতে পারেননি এ আর্জেন্টাইন তারকা।

সোমবার (৩ অক্টোবর) সংবাদ সম্মেলনে ফুটবল থেকে নিজের অবসর ঘোষণা দেন হিগুয়েইন।

হিগুইয়ান বলেন, ‘পেশাদার ফুটবলে আমি সাড়ে ১৭টি বছর কাটিয়েছি। আমার দারুণ এই ক্যারিয়ারে ফুটবল আমাকে অনেক কিছু দিয়েছে। ফুটবলই আমার সবকিছু। যারা আমাকে সমর্থন যুগিয়েছেন এই সময়ে তাদের সবাইকে জানাই ধন্যবাদ। এখন আমার বিদায়ের সময় চলে এসেছে। আমি ফুটবলকে বিদায় জানাচ্ছি।’

গেল এপ্রিলেই হিগুইয়ানের বাবা হোর্হে হিগুইয়ান জানিয়েছিলেন ইন্টার মিয়ামিতে চলতি মৌসুম শেষ করেই ফুটবলকে বিদায় জানাবেন হিগুইয়ান। তবে সে সময় এসব নিয়ে মুখ খুলেননি তিনি। এবার সত্যি সত্যিই ফুটবলকে বিদায় জানিয়ে দিলেন তিনি।

অবসরের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেই ক্লাব কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছিলেন হিগুইয়ান। তিনি বলেন, ‘তিন-চার মাস আগেই আমি ক্লাবকে আমার অবসরের কথা জানিয়েছিলাম। তখন থেকেই জানতাম এমন দিন আসছে। আমি কয়েক বছর ধরেই এ নিয়ে ভাবছিলাম। আমি এখানে এসেছিলাম ফুটবল উপভোগ করার জন্য, আমার জীবনের আনন্দের জন্য, আমার ভাই ফেডের কাছাকাছি থাকার জন্য।’

‘এটা আমার ক্যারিয়ারের অন্যতম একটি পর্যায় ছিল। আমি আপনাদের বলতে পারি যে আমার ক্যারিয়ারের সেরা মুহূর্তগুলোর একটি ছিল এখানে। এই ক্লাব, আমার সতীর্থরা এবং কোচিং স্টাফরা আমাকে ফুটবল খেলার ইচ্ছা ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। আমি এখন অবসর নিতে পারি।’— যোগ করেন হিগুয়েইন।

বাবা আর্জেন্টাইন হলেও হিগুইয়ানের জন্ম ফ্রান্সে। আর সেই সূত্রে ডাক পেয়েছিলেন ফ্রান্স জাতীয় দলে। তবে শেষ পর্যন্ত বেছে নিয়েছিলেন বাবার দেশকেই। পেরুর বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচেই দলকে হারের হাত থেকে বাঁচিয়েছিলেন তিনি। এরপর দুর্দান্ত পারফর্ম করলেও জাতীয় দলের পথচলা সুখকর ছিল না হিগুইয়ানের জন্য। ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে সহজ সুযোগ মিস না করলে হয়তো ইতিহাসটা লেখা হতো ভিন্নভাবে। এরপর দুটি কোপা আমেরিকার ফাইনালেও সহজ মিস করে খলনায়ক বনে যান আর্জেন্টাইনদের কাছে। রাশিয়া বিশ্বকাপের পর আর ডাক মিলেনি জাতীয় দল থেকে।

ক্লাব ক্যারিয়ারে খেলেছেন রিভারপ্লেট, রিয়াল মাদ্রিদ, নাপোলি, জুভেন্টাস, এসি মিলান এবং চেলসির মতো ক্লাবে। এরপর যুক্তরাষ্ট্রের এমএলএস’র ইন্টার মিয়ামির হয়ে ক্যারিয়ারের ইতি টানলেন হিগুয়াইন। যার মধ্যে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে সবচেয়ে বেশি গোল হিগুইয়ানের। আর্জেন্টিনার ইতিহাসের ৬ষ্ঠ সর্বোচ্চ গোলদাতা হিগুইয়ানের গোল সংখ্যা ৩১টি। ক্লাব ক্যারিয়ারও দুর্দান্ত। ৭০৮ ম্যাচে করেছেন ৩৩৩টি গোল।