অতিরিক্ত ভাড়া আদায় : ১৫নং ফেরী ঘাটে ইউএনও’র অভিযান

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন
আনোয়ারা কর্ণফুলী নদীর ১৫ নং ফেরী ঘাট পারাপারে নৌকায় অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই, যাত্রীদের সাথে অসৌজন্য মূলক আচরণ ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। তারই প্রেক্ষিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ জোবায়ের আহমেদ অভিযান।
বুধবার (২ অক্টোবর) বিকালে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
অভিযানে অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় ৪ টি নৌকার মাঝি ও ঘাটের সুপারভাইজারকে আটক করা হয়। তবে পরে মুসলেখা নিয়ে ছেড়ে দেন তিনি। এ সময় যাত্রীদের কাছ থেকে নেয়া অতিরিক্ত ভাড়া ফেরত দেয়া হয়।
পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমদ কর্ণফুলী ঘাট নৌকা মালিক সমিতির সভাপতি ইদ্রীস নুর, ঘাট ইজারাদার ও নৌকার মাঝিদের নিয়ে একটি বৈঠক করেন। বৈঠকে যাত্রী প্রতি ১০ টাকা ভাড়া ও প্রতি নৌকায় ২২ জন যাত্রী পরিবহনের সিদ্ধান্তে উপনিত হয়।
আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমদ বলেন, কর্ণফুলী নদীর ১৫ নং ঘাটের ইজাদার ও সাম্পান মালিক সমিতির সদস্যদের সাথে আলোচনার ভিত্তিতে কোন প্রকার যাত্রী হয়রানি, অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায় যেন করতে না পারে সে ব্যপারে সিদ্ধান্ত হয়।
বৃহষ্পতিবার থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। সাধারণ মানুষ যেন দূর্ভোগে না পড়ে তার জন্য সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।